Tag Archives: রোজা

রোজার সামাজিক ও রাজনৈতিক প্রভাব

রোজার সামাজিক ও রাজনৈতিক প্রভাব

রোজার সামাজিক ও রাজনৈতিক প্রভাব শেখ ফজলুল করীম মারুফ রোজা ইসলামের প্রধান পাঁচটি আমলের একটি। যার লক্ষ্য কোরআনে পরিষ্কারভাবে উল্লেখ করা হয়েছে। আল্লাহ তা’আলা বলেন, “তোমাদের উপর রোজা ফরয করা হয়েছে যাতে তোমরা তাকওয়া অর্জন করতে পারো।” এই আয়াতে পরিষ্কার করা হয়েছে, রোজার প্রধান লক্ষ্য হল তাকওয়া অর্জন করা। তাকওয়া একটি আরবী শব্দ। যার অর্থ;

যে কাজ করলে রমজানের রোজা রাখা সহজ হয়

রমজান মাস ইবাদতের বসন্তকাল। আল্লাহর প্রিয় বান্দারা সুবর্ণ সুযোগকে কাজে লাগাতে ইবাদতে মশগুল থাকেন। রমজান শুরুর সঙ্গে সঙ্গেই সারা মাসের জন্য শয়তানকে বেড়িবদ্ধ করা হয়। সে কারণে রমজানের বরকতস্বরূপ দ্বীনি পরিবেশের সৌন্দর্য পরিলক্ষিত হয়। আর এ জন্যই রমজান মাস মানুষের মন ও আত্মাকে পরিশোধন করার শ্রেষ্ঠ সময়। রাসুলুল্লাহ (সা.) রমজান মাসের জন্য মানসিকভাবে প্রস্তুতি নিতেন

সন্দেহের দিন রোজা রাখা : কী বলে ইসলাম

সন্দেহ কি : সন্দেহ’ এমন একটা শব্দ যেটা থেকে পৃথিবীর অন্য কোন শব্দই রক্ষা পায় না। তাই আর যাই হোক ‘সন্দেহ’ থেকে সাবধান থাকা আবশ্যক। এক্ষেত্রে প্রথমেই আপনাদেরকে ‘সন্দেহ’ শব্দের সন্ধি বিচ্ছেদ সম্পর্কে বলে রাখি। কারন ‘সন্দেহ’ শব্দের সন্ধি বিচ্ছেদকে ব্যাখ্যার মাধ্যমেই পুরা লেখাটা সাজানো হয়েছে। সন মানে বছর বা সময়। আর দেহকে মানুষের মনের

চাঁদ দেখেই রোজা রাখা অারম্ভ করতে হবে

রমজান মাসের চাঁদ দেখেছে, এমন ব্যক্তির সাক্ষ্য, কিংবা পূর্ণ শাবান মাস অতিবাহিত হওয়া ব্যতীত রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম রমজান পালনের সূচনা করতেন না। চাঁদ দেখা ইসলাম ধর্মের একটি বিশেষ নিদর্শন ও সময় অতিবাহনের প্রমাণ হিসেবে সাব্যস্ত, যে কোন সময় ও স্থান হতেই যা চি‎‎হ্নত করা সম্ভব। সাধারণ মানুষ প্রত্যক্ষ যে কোন বিষয়কে স্বীকৃতি প্রদানে কুণ্ঠা

যেমন ছিল রাসুলের রোজা পালনের অবস্থা

ইবাদতের বিবিধ উপকরণ দ্বারা রাসুল (সা.)  রোজার দিবসগুলোকে শোভিত করতেন।  অত্যন্ত আগ্রহ ও ব্যাকুলতার সাথে তিনি সাহরি ও ইফতার গ্রহণ করতেন। ইফতারের সময় হলে দ্রুত ইফতার করে নিতেন, পক্ষান্তরে সাহরি করতেন অনেক দেরিতে, সুবহে সাদিকের কিছুক্ষন পূর্বে সাহরি সমাপ্ত করতেন। ইফতার করতেন ভেজা বা শুকনো খেজুর, অথবা পানি দিয়ে। ভেজা খেজুর দিয়ে সাহরি করাকে পছন্দ

Top